News before News

কিভাবে ইন্টারনেট ব্যবহার করছি?

কিভাবে সারা বিশ্বের মিলিয়ন-বিলিয়ন-ট্রিলিয়ন কম্পিউটার থেকে ডাটা (ছবি, গান, নিউজ, ভিডিউ) আমাদের কম্পিউটার, মোবাইল, টেবে আসে আবার আমাদের ডিভাইস থেকে ওই কম্পিউটার গুলোতে যায়  (এই ডাটা আদান প্রদান কেই আমরা ইন্টারনেট বলি) । বুঝার সুবিধার জন্য আমেরিকার একটা কম্পিউটার থেকে টরেন্ট সফটওয়ারের মাধ্যমে একটা মুভি ডাউনলোডের জন্য অ্যামেরিকা থেকে সিঙ্গাপুর হয়ে বাংলাদেশে আমাদের কম্পিউটারে আসে বা অন্য রাস্তা বেছে নেয়। অনেকটা ইন্দোনেশিয়া বা মিশর থেকে গম আমদানী করে আমাদের বাসার রান্না ঘরে চলে আসার মত। দুই ক্ষেত্রেই কিছু কিছু মধ্যবর্তি ব্যাবসায়ী জড়িত । পার্থক্য শুধু একটিতে বিভিন্ন হাত ঘুরতে মাস খানেক সময় লাগে, আরেকটিতে হাত ঘুরার কাজটি হয় মাত্র মিলি সেকেন্ডে ।

তাহলে দেখাযাক ইন্টারনেটে মধ্যবর্তি ব্যবসায়ী কারাঃ

ITC (International Terrestrial Cable) Operators
আমেরিকা থেকে টরেন্টের ফাইলটি অনেক দেশ হয়ে কক্সবাজারে SEMEWE4 বা SEMEWE5 সাবমেরিন কেবলের মাধ্যমে  অথবা বেনাপোলে টাটা কমিউনিকেশন বা ভারতী এয়ারটেলের মাধ্যমে বাংলাদেশে প্রবেশের জন্য অপেক্ষা করে। ঠিক যেমন মিশর থেকে গমবাহী জাহাজ চট্রগ্রাম পোর্টে অপেক্ষা করে খালাসের জন্য।

এই ফাইল বুঝে নেওয়ার জন্য ৬ টি প্রাইভেট কোম্পানী (যাদের বলা হয় ITC Operators)  এবং একটি সরকারী কোম্পানী BSCCL কে লাইসেন্স দেওয়া হয়েছে ।

  1. Fiber @ Home Limited
  2. Summit Communications Limited
  3. Novocom Ltd.
  4. 1Asia Alliance Communication Ltd.
  5. BD Link Communication Ltd.
  6. Mango Teleservices Ltd
  7. Bangladesh Submarine Cable Company Limited (BSCCL)

তাদের কাজ ফাইলটি নিয়ে পরের লেভেল এর IIG Operator দের বুঝিয়ে দেওয়া । ঠিক যেমন বড় বড় ইম্পোর্টারদের লাইসেন্স দেওয়া হয়েছে গম গুলো বুঝে নিয়ে ময়দা আকারে নানান জায়গার পাইকারী দোকানদার দের কাছে পোঁছায় দেওয়া।

IIG (International Internet Gateway) Operators
ITC এর পরের অপারেটর হচ্ছে IIG. সোজা কথায় এরা হচ্ছে ব্যান্ডউইথের আড়তদার । এরা পাইকারি দামে ITC থেকে ব্যান্ডউইথ কিনে খুচরা দামে শুধুমাত্র Nationwide, Central Zone, Zonal, Category A/B ISP দের কাছে বিক্রয় করার জন্য লাইসেন্স নিয়েছে।

ঠিক যেমন পাইকারী ব্যবসায়িরা ইম্পোরটার থেকে ময়দা কিনে আপনার শহরের বা গ্রামের পাইকারদের কাছে দিয়ে থাকে। বাংলাদেশে এই লাইসেন্স দেওয়া হয়েছে ৩৭ টি কোম্পানি কে ।  এরা শুধুমাত্র ISP কে ব্যান্ডুইথ দিবে , কোন ব্যবহারকারীকে না, এমনকি থানা ভিত্তিক ছোট ছোট ISP কেও না ।

ISP (Internet service provider)
ISP কে বিভিন্ন ভাবে ভাগ করা হয়ছে।

  1. Nationwide ISP- তারা IIG থেকে লাইন নিয়ে সারা দেশে দিতে পারবে। এর সংখ্যা ১২৯+
  2. Central Zone- তারা IIG থেকে লাইন নিয়ে শুধু ঢাকা শহর, জিঞ্জিরা, সাভার, নারায়ানগঞ্জ, গাজীপুর, টঙ্গী এবং বিভাগীয় মুল সহরগুলুতে সার্ভিস দিতে পারবে। এর সংখ্যা ৭০+
  3. Zonal- এই ISP কে দিক অনুসারে ভাগ করা হয়ছে, যেমন- South-East Zone, North-East Zone, South-West Zone ও North-West Zone.  তারা IIG থেকে লাইন নিয়ে Category A,B, C কে লাইন দিতে পারবে। যেমন শরের পাইকারী ব্যবসায়ীরা আপনার এলাকার বা বাজারের মুদি দোকান গুলোতে আটা ময়দা সরবরাহ করে থাকে। এর সংখ্যা ২০+
  4. Category A- এরা শুধু মাত্র ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের নিদ্রিষ্ট থানার জন্য লাইসেন্স পেয়ে থাকে। যারা IIG দের থেকে সংযোগ নিয়ে গ্রাহক পর্যায়ে ইন্টারনেট সরবরাহ করে থাকে। এর সংখ্যা ২২৮+
  5. Category B- এরা ঢাকা বিভাগ বাদে অন্য বিভাগীয় সিটি কর্পোরেশনের নিদ্রিষ্ট থানার জন্য লাইসেন্স পেয়ে থাকে। এর সংখ্যা ৩১+
  6. Category C- ঢাকা, রাজশাহী, সিলেট, খুলনা, চট্রগ্রাম, রংপুর, বরিশাল সিটি কর্পোরেশন ব্যতীত অন্য নিদ্রিষ্ট থানা ভিত্তিক এই লাইসেন্স দেয়া হয়। এর সংখ্যা ৯১+

ক্যাটাগরি ISP রা অনেকটা আমাদের পারা-মহল্লার মুদি হোকান গুলোর মত। যারা পাইকারদের কাছ থেকে আটা-ময়দা-সুজি নিয়ে আমাদের ঘড় পর্যন্ত সরবরাহ করে থাকেন।

সম্প্রতি সরকার আরও ৫৭০টিরও বেশি লাইসেন্স প্রদান করেছে যা এখানে উল্লেখ করা হয়নি।

NTTN (Nationwide Telecommunication Transmission Network) Operators
গম বা ময়দা এক অপেরাটের থেকে আরেক অপেরেটর এমনকি ক্ষেত্র বিশেষে মুদি দোকান থেকে কাস্টমার পর্যন্ত নিয়ে যাওয়ার জন্য পরিবহন ব্যাবস্থার প্রয়োজন। যেমন-ট্রাক, ভ্যান, ঠেলাগাড়ি, রিকশা ইত্যাদি। যারে এইরকম সুবিধা দিয়ে অপটিক্যাল ফাইবারের মাধ্যমে এক ISP থেকে অন্যা ISP, IIG থেকে ISP বা ITC থেকে IIG পর্যন্ত সংযোগ সেবা দিয়ে থাকেন থাদের কে NTTN  বলা হয়। দুরবর্তি শহর গুলোতে সংযোগ স্থাপনের জন্য আন্ডারগ্রাউন্ড ফাইবার দিয়ে ব্যান্ডউইথ অন্য শহরের ISP দের কাছে সরবরাহ করর সার্ভিস দিয়ে থাকে।

বাংলাদেশে ৩ টি সরকারী প্রতিষ্ঠান এবং ২টি বেসরকারী প্রতিষ্ঠানকে এই লাইসেন্স দেওয়া হয়েছে ।  দেখা যাক ৩ টি সরকারি প্রতিস্টানের কি অবস্থা-

  1. বাংলাদেশ রেলওয়েঃ গ্রামীনফোন সম্পুর্ন একক ভাবে বাংলাদেশ রেলেওয়ের সারা দেশ ব্যাপী বিশাল ফাইবার নেটওয়ার্ক ব্যাবহার করে । কোন আইএসপি এই নেটওয়ার্ক ব্যাবহার করার কোন সুযোগ পায় না ।
  2. পাওয়ার গ্রিড কোম্পানী অফ বাংলাদেশ লিমিটেডঃ সারা দেশে ইলেকট্রিসিটি পাওয়ার দেওয়ার জন্য যে নেটওয়ার্ক করা হয়েছে , সেই নেটওয়ার্কে রয়েছে দেশ ব্যাপী বিস্তত ফাইবার নেটওয়ার্ক। এইটি ও কোন আইএসপি ব্যাবহার করতে পারে না । অন্যান্য প্রাইভেট NTTN রা এটি ব্যাবহার করে ।
  3. বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন কোম্পানী লিমিটেড-BTCLঃ এটি সীমিতভাবে আইএসপি রা ব্যাবহার করে । কিন্তু এটির সাপোর্ট সার্ভিসের যা অবস্থা হয়েছে ( বা করে রাখা হয়েছে ) এটি ISP রা খুব একটা ব্যাবহার করতে আগ্রহী হয় না।

সুতরাং ISP দের সম্পুর্ন নির্ভর করতে হচ্ছে মাত্র দুইটি বেসরকারী NTTN এর উপর ।

  1. Fiber @ Home Limited
  2. Summit Communications Limited.

তাহলে কি দাড়াল- সুদুর অ্যামেরিকা থেকে যেকোন ডাটা সাবমেরিক কেবলের মাধ্যমে বাংলাদেশের কক্সবাজার, কোয়াকাটা বা বেনাবুল হয়ে বাংলাদেশের ITC থেকে NTTN এর আন্ডারগ্রাউন্ড ফাইবারের মাধ্যমে IIG হয়ে ISP দের মাধ্যামে আমাদের ঘরের কম্পিউটার বা রাউটার/মোবাইল পর্যন্ত আদান প্রদান করে থাকে। এই সম্পুর্ন কাজটি হতে সময় লাগে মাত্র ২০-১০০ মিলি সেকেন্ড এর মত।

আপনার এগুলো পছন্দ হতে পারে