News before News

গৃহবধূর উপর নির্যাতন চালালো মাদকাসক্ত স্বামী

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে দাবিকৃত যৌতুকের টাকা না পেয়ে মাদকাসক্ত স্বামী সানোয়ারা বেগম (২৮) নামে এক গৃহবধূর উপর নির্যাতন চালিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার সকালে উপজেলার দাড়িকান্দি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। গৃহবধূ সানোয়ারা বেগম উপজেলার গঙ্গানগর এলাকার সমর আলীর মেয়ে।

গৃহবধূ সানোয়ারা বেগম জানান, ৪ বছর আগে উপজেলার দড়িকান্দি এলাকার আমির হোসেনের ছেলে সুজন মিয়ার সঙ্গে সানোয়ারা বেগমের বিয়ে হয়। বিয়ের পর তাদের সংসারে শামীম আহম্মেদ নামে দেড় বছরের একটি ছেলে সন্তানের জন্ম হয়। সন্তান জন্মের পর থেকেই স্বামী সুজন মিয়া ফেনসিডিল, ইয়াবা ট্যাবলেটসহ বিভিন্ন ধরনের মাদক সেবন করতে শুরু করেন। স্বামী সুজন মিয়া কয়েক বছর আগে গৃহবধূ সানোয়ারা বেগমকে তার বাবার বাড়ি থেকে ১ লাখ টাকা যৌতুক এনে দিতে বলে। মেয়ের সুখের চিন্তা করে বাবা সমর আলী ১ লাখ টাকা প্রদান করেন। তারপরও স্বামী সুজন মিয়া ঠিকমতো সংসার চালানোর জন্য ভরনপোষন দিচ্ছে না। সানোয়ারা বেগমের মা মোমেলা বেগম মেয়ে সুখের কথা চিন্তা করে তাদের জন্য টিনের ঘর নির্মাণ করে দেয়।

মঙ্গলবার সকালে স্বামী সুজন মিয়া গৃহবধূ সানোয়ারা বেগমকে তার বাবার বাড়ি থেকে ১ লাখ টাকা যৌতুক এনে দিতে বলে। গৃহবধূ সানোয়ার বেগম তার বাবার বাড়ি থেকে কোন টাকা এনে দিতে পারবে না বলে সাফ জানিয়ে দেয়। সুজন মিয়াকে টাকা এনে দিতে অস্বীকার করায় ক্ষিপ্ত হয়ে গৃহবধূ সানোয়ারা বেগমকে এলোপাথারিভাবে পিটিয়ে আহত করেন। পরে সানোয়ারা বেগমের ডাক-চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে স্বামী সুজন মিয়া বিভিন্ন ধরনের হুমকি ধামকি দিয়ে চলে যায়। যদি সানোয়ারা বেগম তার বাবার বাড়ি থেকে টাকা না এনে দেয় তাহলে সুজন মিয়া তাকে তালাক দিবে বলে হুমকি প্রদান করেন।

এ ব্যাপারে রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান মনির বলেন, এ ধরনের অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত মোতাবেক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আপনার এগুলো পছন্দ হতে পারে