News before News

ট্রাম্পের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক নিয়ে বিস্ফোরক প্লেবয় সুন্দরী

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে জড়িয়ে নারীঘটিত ব্যাপারের ঘাটতি নেই বাজারে; এরই মধ্যে মুখ খুললেন আরেক নারী।

সাবেক প্লেবয় সুন্দরী কারেন ম্যাকডোগালের সম্পতি প্রকাশ করা তথ্য নিয়েই এবার যুক্তরাষ্ট্রসহ আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলো সরব বলে নিউইয়র্ক টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

নিউ ইয়র্কার সাময়িকীতে নিজেকে ট্রাম্পের সাবেক প্রেমিক উল্লেখ করে ম্যাকডোগাল বলেছেন, প্রায় এক দশক আগে ১০ মাস তার সঙ্গে সম্পর্ক ছিল ট্রাম্পের। ওই সময়ের মধ্যে তারা শারীরিক সম্পর্কেও লিপ্ত হয়েছেন।

আট পৃষ্ঠার এক নোটে ম্যাকডোগাল দাবি করেন, তার সঙ্গে যখন ট্রাম্পের সম্পর্ক চলছিল, তখনই মেলানিয়ার গর্ভে ট্রাম্পের সন্তান ব্যারনের জন্ম হয়েছিল।

অ্যামেরিকান মিডিয়া ইনকর্পোরেটের (এএমআই) সঙ্গে দেড় লাখ ডলারের একটি চুক্তিতে আবদ্ধ হওয়ার পর ট্রাম্পের সঙ্গে সম্পর্কের বিষয়ে তিনি নীরব ছিলেন বলে জানিয়েছেন ম্যাকডোগাল।

নিউ ইয়র্কার সাময়িকীকে ম্যাকডোগাল বলেন, ২০০৬ সালে প্লেবয় ম্যানশনে প্লেবয় কর্ণধার হিউ হফনারের একটি পার্টিতে ট্রাম্পের সঙ্গে দেখা হয়েছিল ব্যবসায়ী ট্রাম্পের।

দিনলিপিতে সাবেক এই প্লেবয় তারকা লিখেছেন, ট্রাম্প আমাকে অর্থ দিতে চেয়েছিল। সেকথা শুনে আমি তখন আহত হয়েছিলাম। আমি বলেছিলাম, আমি সেই রকম মেয়ে নই। আমি তোমাকে পছন্দ করেছি বলে তোমার সঙ্গে শুয়েছি।

সার্বিক বিষয়ে হোয়াইট হাউস বলেছে, ট্রাম্পের সঙ্গে কখনও ম্যাকডোগালের কোনো সম্পর্ক ছিল না।

আপনার এগুলো পছন্দ হতে পারে