News before News

রূপগঞ্জে বজ্রপাতে ভয়াবহ অগ্নিকান্ড, ৭০ বসতঘরসহ মালপত্র পুড়ে ছাই

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে বজ্রপাতে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। এতে ৭০টি বসতঘরসহ ৫টি দোকানসহ মালপত্র পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। তবে, এতে কেউ হতাহত হয়নি। গত সোমবার মধ্যে রাতে উপজেলার তারাব পৌরসভার দিঘীবরাব এলাকায় ঘটে এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয়রা জানান, দিঘীবরাব এলাকার মনির হোসেন বেপারীর টিন ও কাঠ দিয়ে নির্মাণ করা ৭০টি রুম বিশিষ্ট একটি বাড়ি রয়েছে। ওই বাড়িতে ৭০টি পরিবার বসবাস করে। এছাড়া ওষুধ ও মুদিমনোহরীর ৫টি দোকানঘরও রয়েছে। সোমবার রাত আড়াইটার দিকে হঠাৎ করে কালবৈশাখী ঝড় উঠে। এসময় হঠাৎ করে বেশ কয়েকটি বজ্রপাতের ঘটনা ঘটে। এসময় বাড়ির একপাশের রুমে আগুন লেগে যায়। পরে আগুন লেগেছে বলে চিৎকার শুরু করে ঘরে থাকা লোকজন। এসময় বাড়ির সকলে ঘর থেকে বের হয়ে গিয়ে এলাকাবাসীর সহযোগীতায় আগুন নেভানোর চেষ্টা চালায়। এক পর্যায়ে আগুনের লেলিহান শিখা বেড়ে উঠে। আগুন প্রায় ৩০ থেকে ৪০ ফুট উঁচুতে উঠে যায়। এসময় পুরো এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। লোকজন ছুটাছুটি করতে শুরু করে। খবর পেয়ে ডেমরা ফায়ার সার্ভিসের দুটি ও আদমজি ইপিজেড ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট প্রায় দুই ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নেভাতে সক্ষম হন। ততক্ষনে ৭০টি বসতঘর, ৫টি দোকানঘরসহ মালামাল পুড়ে ছাই হয়ে যায়। তবে, বাড়ির মালিক মনির হোসেনের দাবি, সব মিলিয়ে প্রায় দুই কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

ডেমরা ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র ষ্টেশন অফিসার মোহাম্মদ বজলুর রশিদ বলেন, কিভাবে আগুনের সুত্রপাত তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। এছাড়া সময় মতো আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে না পারলে আশ-পাশে ছড়িয়ে আরো বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতো।

আপনার এগুলো পছন্দ হতে পারে