News before News

রূপগঞ্জে স্ত্রীকে মারধর করে সন্তান নিয়ে পালিয়ে গেলো স্বামী

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে রহিমা বেগম নামে এক গৃহবধুকে মারধরসহ শারিরিক নির্যাতন করে ১০ মাস বয়সের এক শিশু সন্তানকে নিয়ে পালিয়ে গেলো স্বামীসহ শশুর বাড়ির লোকজন। সন্তানকে না পেয়ে ওই গৃহবধু প্রায় পাগল হয়ে গেছে। নির্যাতিত রহিমা বেগম বাদী হয়ে পাষন্ড স্বামীসহ শশুর বাড়ির লোকজনের বিরুদ্ধে মঙ্গলাবার সকালে রূপগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

রহিমা বেগম ভোলা জেলার লালমোহন থানার ভগিরচর এলাকার রুহুল আমিনের মেয়ে। বর্তমানে রহিমা বাবার সঙ্গে রূপগঞ্জ উপজেলার যাত্রামুড়া এলাকায় বসবাস করে আসছেন।

রহিমা বেগম অভিযোগ করে জানান, গত তিন বছর আগে খুলনা জেলার মোড়লগঞ্জ থানার গজালিয়া এলাকার আব্বাস আলীর ছেলে আরিফ হোসেনের সঙ্গে রহিমা বেগমের বিয়ে হয়। বিয়ের পর তাদের সংসারে আমিন নামে ১০ মাসের শিশু সন্তান হয়। সন্তান হওয়ার পর থেকেই স্বামী আরিফ হোসেন গৃহবধু রহিমা বেগমের কোন প্রকার খোজ-খবর নেননা। ভরন পোষন চাওয়ায় রহিমাকে সন্তানসহ বাবার কাছে যাত্রামুড়ায় পাঠিয়ে দেয়া হয়।

গত ৯ এপ্রিল সন্ধ্যায় স্বামী আরিফ হোসেনসহ রবিউল, আব্বাস আলী, শাহীনসহ ৩/৪ জন মিলে যাত্রামুড়ার বাসায় এসে রহিমাকে বেধরক মারধর ও শারিরিক নির্যাতন করে। এক পর্যায়ে শিশু সন্তান আমিনকে নিয়ে তারা পালিয়ে যায়। এরপর বিভিন্ন স্থানে খোজাখুজির পরও সন্তানকে না পেয়ে তিনি পাগল প্রায়। প্রশাসনের কাছে একটাই দাবি, সন্তানকে ফিরিয়ে দাও।

এ বিষয়ে রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান মনির বলেন, এখন পর্যন্ত এ ধরনের ঘটনা আমার জানা নেই। অভিযোগ দিলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবেনা।

আপনার এগুলো পছন্দ হতে পারে