News before News

৫ বছরের সাজা, জেলে সালমান

হরিণ শিকারের দায়ে কারাগারে যেতে হচ্ছে বলিউড সুপারস্টার সালমান খানকে। দীর্ঘ ১৯ বছর ধরে চলে আসা কৃষ্ণসার হরিণ শিকার মামলায় তাকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন স্থানীয় আদালত। পাশাপাশি তাকে ১০ হাজার রুপি অর্থদণ্ডও দেওয়া হয়েছে।
বৃহস্পতিবার (৫ এপ্রিল) দুপুরে রাজস্থান রাজ্যের যোধপুরের বিচারিক আদালত বলিউডের ‘ভাইজান’র বিরুদ্ধে এ রায় ঘোষণা করেন।

সালমান ছাড়াও সাইফ আলী খান, টাবু, সোনালি বেন্দ্রে ও নীলম এই মামলার আসামি ছিলেন। তবে ১৯৯৯ সালে দায়ের করা এই মামলায় সালমান ছাড়া বাকিদের বেকসুর খালাস দিয়েছেন আদালত।

১৯৯৮ সালে সুরজ বরজাতিয়া পরিচালিত ‘হাম সাথ সাথ হ্যায়’ ছবির দৃশ্যধারণ চলাকালীন ‘থর’ মরুভূমির শহর যোধপুরের কাছে কঙ্কনী গ্রামে বিরল প্রজাতির দু’টি কৃষ্ণসার হরিণ শিকারের অভিযোগ ওঠে সালমান খানের বিরুদ্ধে। পরে ১৯৯৯ সালে ওই মামলা দায়ের করা হয়।

মামলাটির চূড়ান্ত যুক্তিতর্ক শুরু হয়েছিলো ২০১৭ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর। চলতি বছরের ২৪ মার্চ দুই পক্ষের প্রশ্নোত্তর পর্ব শেষ হয়। এরপর ৫ এপ্রিল চূড়ান্ত রায়ের দিন ধার্য করেন যোধপুর আদালত। এদিন সালমান খান ও অন্য অভিযুক্তদের উপস্থিতিতে রায় দেন প্রধান বিচার বিভাগীয় ম্যাজিস্ট্রেট দেব কুমার খাতরি।

২০০৭ সালে যোধপুর কারাগারে কয়েকদিন বন্দি ছিলেন সল্লু। তারপর জামিনে মুক্ত হন তিনি। গত বছর এই মামলায় নির্দোষ প্রমাণ হন তিনি। কিন্তু পরবর্তীতে এই রায়ের ওপর আবারও আপিল করা হলে কারাদণ্ড ঘোষিত হলো সালমানের বিরুদ্ধে।

আপনার এগুলো পছন্দ হতে পারে