News before News

৭৯ রানে হেরে গেল বাংলাদেশ

মোহাম্মদ মিঠুনের ফাইনালে অন্তর্ভুক্তি চমকে দিয়েছিল সবাইকে। এনামুল হকের বাজে ফর্মের কারণে পাওয়া সুযোগটা কাজে লাগাতে পারেননি এই ওপেনার। ২৭ বলে ১০ রান করেই আউট হয়ে গেছেন। এর আগে তামিম ইকবালও ফিরে গেছেন মহাগুরুত্বপূর্ণ এই ম্যাচে। ২২ রানে তিন উইকেট হারিয়ে ফেলেছিল বাংলাদেশ। ৪১.১ ওভারে ১৪২ রানে গুটিয়ে গেল বাংলাদেশ।

২২২ রানের লক্ষ্য। উইকেট বিবেচনায় এটাই এখন পাহাড় বলে মনে হচ্ছে। প্রথম ওভারে কোনো রান আসেনি। ৪ ওভার শেষেও বাংলাদেশের স্কোর ছিল বিনা উইকেটে ৫ রান। পঞ্চম ওভারের দ্বিতীয় বলে সুরঙ্গা লাকমলের বলে মারা মিঠুনের ছক্কায় মনে হচ্ছিল অবস্থা স্বাভাবিক হচ্ছে। কিন্তু ষষ্ঠ ওভারে সে হিসাব চুকাল। দ্বিতীয় বলে একবার জীবন ফিরে পেয়েও পরের বলেই শর্ট বলে তামিম।
মাঝে দুই ওভারের বিরতি দিয়ে মিঠুন আউট হলেন। বলা ভালো আত্মহত্যা করলেন। মিড অফে বল ঠেলে দিয়ে দৌড় দিয়েছিলেন। থিসারা পেরেরার থ্রোতে ১০ রানেই প্রত্যাবর্তন পর্ব শেষ হলো তাঁর।

সাব্বির তাঁকে অনুসরণ করলেন পরের ওভারেই। অবশ্য আউটের ধরন বিবেচনা করলে তামিমের অনুসরণ। দুষ্মন্ত চামিরার শর্ট বলে ভুল টাইমিং। মিড অনে ক্যাচ দিয়ে বিদায় নিলেন সাকিবের বদলে তিনে নামা সাব্বির।

ফিল্ডিংয়ে সাকিব চোট পাওয়ায় আজ ব্যাটিংয়ে ১০ জন নিয়ে খেলছে বাংলাদেশ। সেদিনই টপ অর্ডারের এমন দায়িত্বজ্ঞানহীন ব্যাটিং। এর পর মাহমুদউল্লাহকে নিয়ে ইনিংস গড়ার দায়িত্ব নিয়েছিলেন মুশফিক। কিন্তু ৫৮ রানের জুটি গড়ে আকিলা দনঞ্জয়ার বলে সুইপ করতে গিয়ে আউট হয়েছেন ২২ রানে। দনঞ্জয়ার বলেই আউট হয়েছেন মেহেদী হাসান মিরাজ। মাহমুদুল্লাহর (৬৭*) কাঁধেই এখন সব দায়িত্ব।

 

আপনার এগুলো পছন্দ হতে পারে