নারায়ণগঞ্জে শাওন হত্যায় দুইজনের মৃত্যুদণ্ড

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের তেল ব্যবসায়ী মওদুদ আহমেদ শাওন (২৫) হত্যাকান্ডের ৪ বছর পর হত্যাকারী দুই বন্ধুর ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদন্ডের আদেশ দিয়েছে আদালত।
সোমবার (৩০ জুলাই) দুপুরে জেলা ও দায়রা জজ ১ আদালতের বিচারক রবিউল আউয়াল এ রায় ঘোষণা করেন।
দন্ডপ্রাপ্ত আসামীরা হলেন সিদ্ধিরগঞ্জের নজরুল ইসলামের ছেলে রাকিব (২৪) ও মোশারফ হোসেনের ছেলে সাজ্জাদ হোসেন বসু (২৪)। এদের মধ্যে রাকিব পলাতক রয়েছেন। এরা দুজনেই শাওনের ঘনিষ্ঠ বন্ধু ছিল ও তেলের ব্যবসা করতো।
আদালতের এপিপি মাকসুদা আহমেদ রায়ের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, মূলত আসামীরা শাওনের বন্ধু সোহেলের দোকান থেকে তেল এনে ব্যবসা করতো। জমতে জমতে ৫ লক্ষ টাকার দেনা হয়ে যাওয়ায় শাওন আসামিদেরর টাকার জন্য চাপ দেয় ও লিখিত ষ্ট্যাম্প করিয়ে দেয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে আসামীরা শাওনকে সোনারগাঁয়ে নিয়ে হত্যা করে।
২০১৪ সালের ১০ জুলাই সোনারগাঁ উপজেলার বারদী ইউনিয়নের দৌলদী গ্রামের একটি ধইঞ্চাখেত থেকে শাওনের লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহতের পেটে ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে ছুরিকাঘাত ছিল। ওই সময় পরিচয় না পাওয়ায় ময়নাতদন্ত শেষে ১১ জুলাই মাসদাইর কবরস্থানে বেওয়ারিশ হিসেবে তাঁর লাশ দাফন করা হয়। ওই ঘটনায় সোনারগাঁ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করে পুলিশ। ১২ জুলাই তাঁর পরিবার শাওনের লাশ শনাক্ত করলে আদালত লাশটি তাঁর পরিবারের কাছে হস্তান্তরের নির্দেশ দেন। ১৬ জুলাই নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে মাসদাইর পৌর কবরস্থান থেকে শাওনের লাশ উত্তোলন করা হয়।
আপনার এগুলো পছন্দ হতে পারে